৫ হাসপাতালে ঘুরেও মেয়েকে ভর্তি করাতে পারেননি হতভাগা পিতা !

চট্টগ্রাম সংবাদ

News Desk    |    ০৯:০৭ পিএম, ২০২০-০৪-০১


 ৫ হাসপাতালে ঘুরেও মেয়েকে ভর্তি করাতে পারেননি হতভাগা পিতা !

নিজস্ব প্রতিবেদক:

চট্টগ্রামে ৬ দিনে ৫ হাসপাতাল ঘুরেও অসুস্থ মেয়েকে কোন হাসপাতালে ভর্তি করাতে পারেননি এক হতভাগা পিতা। পরে এক পুলিশ কর্মকর্তার মাধ্যমে  মেয়ে সানজিদার করোনা পরীক্ষা করা হয়। আজ বুধবার পরীক্ষার প্রতিবেদনে দেখা যায় নেগেটিভ, অর্থাৎ মেয়েটি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত নয়। হাফছেড়ে বাঁচে অসুস্থ সানজিদার বাবা রফিকুল ইসলাম।

জানা যায়, গত ২৬ মার্চ চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ার স্কুলছাত্রী সানজিদা ইসলাম সুমাইয়ার (১৬) শ্বাসকষ্ট দেখা দিলে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায় তার পরিবার। সেখানকার এক চিকিৎসক অ্যান্টিবায়োটিক ওষুধ খাওয়ানোর পরামর্শ দিয়ে হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার কথা বলে বাড়িতে পাঠিয়ে দেন। ওই দিন সন্ধ্যায় সানজিদার অবস্থার অবনতি হলে চট্টগ্রাম নগরীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে নেওয়া হয়।

সর্দি, কাশি ও জ্বরে থাকায় একজন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক তাৎক্ষণিক এক্স-রে করিয়ে প্রতিবেদন দেখার পর চট্টগ্রাম মেডিকেলে ভর্তির পরামর্শ দিলে পরে রাত একটার সানজিদাকে চমেক হাসপাতালে নেওয়া হয়। করোনাভাইরাস আক্রান্ত সন্দেহে মেয়েটিকে সেখান থেকে চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে পাঠিয়ে দেয়। তখন রাত তিনটা। সেখান থেকে চট্টগ্রাম সংক্রামক ব্যাধি হাসপাতালে যেতে বলা হয়। রাতে ওই হাসপাতালের সেবা বন্ধ থাকে। পরবর্তীতে শুক্রবার সকাল আটটার দিকে মেয়েটিকে চট্টগ্রাম সংক্রামক ব্যাধি হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকেরা চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের রেফারেন্স ছাড়া করোনাভাইরাসের টেস্ট করাতে অস্বীকৃতি জানান। পরে একজন চিকিৎসক জ্বরের ওষুধ দিয়ে হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার কথা বলেন।

এরই মধ্যে অসুস্থ সানজিদার বাবা রফিকুল ইসলাম চট্টগ্রামের কয়েকটি বেসরকারি হাসপাতালে খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন করোনাভাইরাস পরীক্ষার প্রতিবেদন ছাড়া কোনো হাসপাতালে রোগী ভর্তি নেওয়া হচ্ছে না। কোনো উপায় না পেয়ে অসুস্থ মেয়েকে নিয়ে বাড়িতে ফেরেন বাবা। গত রবি ও সোমবার দুদিন মেয়েকে নিয়ে বাড়িতেই ছিলেন।

কিন্তু মেয়ের অবস্থার উন্নতি হয়নি। তাই ফের মেয়েকে চিকিৎসা করানোর চেষ্টা শুরু করেন। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে চট্টগ্রামের এক পুলিশ কর্মকর্তার মাধ্যমে সানজিদার করোনা পরীক্ষা করা হয়। আজ বুধবার পরীক্ষার প্রতিবেদনে দেখা যায় নেগেটিভ, অর্থাৎ মেয়েটি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত নয়।

  ‘স্যার ফেলে দিয়েছি, এখন লাশ কী করব’

  টিকার দুই ডোজের ব্যবধান কমানোর উপায় খুঁজতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ

  হাটহাজারীতে বৃক্ষ বিতরণের মাধ্যমে ব্যতিক্রমী ওরশ উদযাপন।

  ফয়েজ লেকে ফুটপাত দখল করে ব্যবসা, ৩০ দোকান উচ্ছেদ

  আফগানিস্তানে আটকে পড়া ২৭ বাংলাদেশিকে ফিরিয়ে আনা হবে চলতি সপ্তাহেই

  দেশে করোনায় আরও ১৩৯ জনের মৃত্যু

  বিএনপি-জামায়াতের সহযোগিতায় ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা: প্রধানমন্ত্রী

  গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে করোনায় মৃত্যু কমে ১২০

  চট্টগ্রামে এলো আরও দেড় লাখ টিকা

  কর্ণফুলীতে ৬০ লাখ টাকার ইয়াবাসহ যুবক গ্রেপ্তার

  ফটিকছড়ির বদলে হাটহাজারীতেই দাফন সম্পন্ন অন্তিমযাত্রায়ও বাবুনগরী পাশে পেলেন আহমদ শফীকে

  সীতাকুণ্ডে ভেসে এলো মৃত ডলফিন

  সীতাকুণ্ডে ভেসে এলো মৃত ডলফিন

  করোনায় প্রাণ গেল ১৪৫ জনের, মোট মৃত্যু ২৫ হাজার ছাড়াল

  সেনাবাহিনী চট্টগ্রামে ২০০ পরিবারের পাশে দাঁড়াল

  সৌদিতে বিনিয়োগ করে নিজ নামে ব্যবসা করতে পারবেন বাংলাদেশিরা

  এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে : ঘুরপাক খাচ্ছে ‘পাহাড়েই’

  বিদেশ যাওয়া মানা ইভ্যালির চেয়ারম্যান ও এমডির

  বিজিবি দেখে খালে ঝাঁপ, যুবকের লাশ মিলল একদিন পর

  দেশে করোনায় রেকর্ড ১৪৩ মৃত্যুবরণ করেছেন


পাবলিক মতামত

( আপনার নাম, ছবি, ঠিকানা প্রকাশিত হবে না। )